যুদ্ধ এবং ভালোবাসার গল্প

তপুর সাথে ভিকির পরিচয়। ১ বছর। এক সময় সারা রাত চ্যাট করতো তপু ভিকির সাথে। ধীরে ধীরে তাদের মাঝে বন্ধুত্ব গড়ে উঠলো। কোন কোন দিন চ্যাট না হলে অস্থির লাগতো তপুর। বুকে চাপা কষ্ট অনুভব করতো। অভিমান হতো। এর পর স্কাইপি তে কথা , ভিডিও চ্যাট হলো । ভিকি কে দেখারা জন্য সারাদিন অপেক্ষা করতো তপু। তপু বুঝতে পারছিলো সে ভিকি কে ভালবেসে ফেলেছে। কিন্তু ভিকি কে সে কিছু বলে নাই। কারন দূরত্ব বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভিকি বাংলাদেশি বংশ্তভুত জার্মান। তার বাবা , মা বাঙ্গালী।কিন্তু সে জার্মানির নাগরিক। বড় হয়েছে জার্মানিতে। ভিকির জীবনে একটা অসম্ভব কষ্টের অধ্যায় আছে। আর এই জন্য তার বাংলাদেশে আসা।